ভোটার কার্ড সংশোধন ফি

ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন করতে কত টাকা লাগে 2024

ভোটার আইডি কার্ডে ভুল তথ্য আছে? ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন করতে হবে? তবে জানেন না ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন করতে কত টাকা লাগে? আজকের পোস্টে আমরা জানবো ভোটার আইডি কার্ডের বিভিন্ন তথ্য সংশোধন করতে কতো টাকা লাগে। 

ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন করার ক্ষেত্রে অনেকেই বুঝতে পারেন না যে আসল সংশোধন ফি ১১৫ টাকা নাকি ২৩০ নাকি ৩৪৫ টাকা। এজন্য এই পোস্টে আমরা ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন ফি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো।

ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন করার সাধারন তিনটি  ক্যাটাগরি আছে। কি তথ্য সংশোধন করবেন টার উপর নির্ভর করে সংশোধন ফি ভিন্ন হতে পারে। আবার সংশোধন আবেদন কতোতম বার করা হচ্ছে তার উপর নির্ভর করেও ফি ভিন্ন হতে পারে ।

সাধারন ভাবে ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন করতে ভ্যাট সহ মোট ২৩০ টাকা লাগে। এখানে ফি ২০০ টাকা এবং ১৫% ভ্যাত ৩০ টাকা মোট ২৩০ টাকা। তবে এক্ষেত্রে জাতীয় পরিচয় পত্র এর অন্যান্য তথ্য সংশোধন করতে ভ্যাট সহ ১১৫ টাকা ফি প্রদান করতে হই। 

ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন করতে কত টাকা লাগে 2024 NID Correction Fee

প্রথমবার ভোটার আইডি কার্ড সংশোধনের ক্ষেত্রে আবেদন ফি মোট ২৩০ টাকা। এখানে ফি ২০০ টাকা এবং ১৫% ভ্যাট সহ মোট ফি ২৩০ টাকা। দ্বিতীয়বার আইডি কার্ড সংশোধনের ক্ষেত্রে ফি ৩০০ টাকা এবং ১৫% ভ্যাট সহ ফি মোট ৩৪৫ টাকা। দ্বিতীয়বার আবেদনের পর আবার যতবার আবেদন করবেন প্রত্যেকবার ভ্যাট সহ মোট ৫৭৫ টাকা ফি প্রদান করতে হবে। 

আরও পড়ুন  NID Card Form নাম্বার ভুল দেখলে করণীয় ২০২৪

ভোটার আইডি কার্ড সংশোধনের ধরনের পাশাপাশি আইডি কার্ড প্রাপ্তি বা উপযুক্ত ঠিকানায় ডেলিভারের উপরও সংশোধন ফি নির্ভর করে। ভোটার আইডি কার্ডের সাধারণ তথ্য সংশোধন করে সাধারণ ডেলিভারের জন্য মোট ২৩০ টাকা ফি প্রদান করতে হয়। আবার সংশোধনের পর জরুরিভাবে আপনার আইডি কার্ড পাওয়ার জন্য ফি বাড়িয়ে মোট ৩৪৫ টাকা প্রদান করতে হয়। 

এক্ষেত্রে মনে রাখবেন ভোটার আইডি কার্ড তথ্য সংশোধনের মোট তিনটি ধরন রয়েছে। এই ধরন অনুসারে ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন ফিও ভিন্ন ভিন্ন হয়। 

ভোটার আইডি কার্ড তথ্য সংশোধন এর তিনটি ধরন হলো :-  মৌলিক তথ্য সংশোধন, অন্যান্য তথ্য সংশোধন এবং ঠিকানা পরিবর্তন। আপনি চাইলে মোবাইল ব্যাংকিং সেবার মাধ্যমে প্রযোজ্য ফি পরিশোধ করতে পারেন। 

ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন ফি তালিকা

ভোটার আইডি কার্ড সংশোধনের ক্ষেত্রে আবেদনের ধরন অনুসারে সংশোধন ফি ভিন্ন ভিন্ন হয়ে থাকে। এমনকি সংশোধিত আইডি কার্ড ডেলিভারির সাধারণ নাকি জরুরী তা অনুসারেও সংশোধন ভিন্ন হয়। বোঝার সুবিধার্থে নিম্নে  ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন ফি এর একটি তালিকা দেওয়া হলো :- 

সংশোধন এর ধরন ফি এর পরিমাণফি ভ্যাট মোট ফি 
সাধারন তথ্য সংশোধন ২০০ টাকা ৩০ টাকা ২৩০ টাকা 
অন্যান্য তথ্য সংশোধন ১০০ টাকা১৫ টাকা১১৫ টাকা 
উভয় তথ্য সংশোধন ৩০০ টাকা৪৫ টাকা৩৪৫ টাকা 
আইডি কার্ড রে-ইস্যু ৩০০ টাকা ৪৫ টাকা৩৪৫ টাকা
জরুরি রে-ইস্যু ৫০০ টাকা ৭৫ টাকা ৫৭৫ টাকা 
ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন ফি

মৌলিক তথ্য সংশোধন করতে কত টাকা লাগে

আপনার ভোটার আইডি কার্ডের মৌলিক তথ্য বলতে নিজের নাম ও ইংরেজি তথ্য, পিতা মাতার নাম এর বাংলা ও ইংরেজি তথ্য, জন্মতারিখ, রক্তের গ্রুপ ইত্যাদি কে বোঝায়। বোঝার সুবিধার্থে নিম্নের ভোটার আইডি কার্ডের মৌলিক তথ্যের একটি তালিকা দেয়া হলো  :- 

  • ঠিকানা সংশোধন 
  • স্বাক্ষর সংশোধন
  • জন্ম নিবন্ধন নাম্বার সংশোধন
  • জন্ম নিবন্ধন এর ছবি সংশোধন 

কিভাবে ভোটার আইডি কার্ডের তথ্য সংশোধন করবেন তা জানা নাও থাকতে পারে। এই বিষয়ে বিস্তারিত জানতে আর পড়তে পারেন –ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন 2024.

আরও পড়ুন  NID Card Re-Issue Online 2024 - জাতীয় পরিচয় পত্র রি-ইস্যু আবেদন 

আপনার ভোটার আইডি কার্ডের নিজের নাম সহ অন্য সকল মৌলিক তথ্য সংশোধন এর জন্য প্রথমবার  আবেদন এর ক্ষেত্রে সংশোধন ফি ২০০ টাকা এবং ভ্যাট সহ মোট ২৩০ টাকা। ভোটার মৌলিক তথ্য ২য় বার সংশোধন এর ক্ষেত্রে ১৫% ভ্যাট সহ মোট ২৪৫ টাকা লাগবে। এবং ৩য় বার তথ্য সংসধন এর ক্ষেত্রে ভ্যাট সহ মোট ৪০০ টাকা লাগবে।   

ভোটার আইডি কার্ড এর নাম পরিবর্তন কিংবা অন্য সকল মৌলিক তথ্য সংশোধনের জন্য প্রথমবার আবেদনের ক্ষেত্রে ২০০ টাকা, ২য় বার ৩০০ টাকা এরপর ৪০০ টাকা ফি জমা দিতে হয়।সংশোধন ফি প্রদান করে আবেদন সম্পূর্ণ হলে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করে বিভিন্ন কাজে ব্যাবহার করতে পারবেন। 

অন্যান্য তথ্য সংশোধন করতে কত টাকা লাগে

আপনার ভোটার আইডি কার্ডে অর্থাৎ জাতীয় পরিচয় পত্রে মৌলিক তথ্য বাদেও অন্য কিছু তথ্য সংরক্ষিত থাকে। এসকল তথ্য জাতীয় পরিচয় পত্র কার্ড এ সিম কার্ড এর মত অংশে সংরক্ষিত থাকে। বোঝার সুবিধারতে নিম্নে এসকল তথ্য এর একটি তালিকা দেওয়া হলো :-  

  • স্বামী এবং স্ত্রীর নাম
  • শিক্ষাগত যোগ্যটা
  • কাজের ক্ষেত্র
  • ড্রাইভিং লাইসেস্ন এর তথ্য
  • ব্যাক্তির ধর্ম
  • মোবাইল নাম্বার 
  • পাসপোর্ট 

আপনার ভোটার আইডি কার্ডের অন্যান্য সাধারণ তথ্য সংশোধন করার ক্ষেত্রে সংশোধনটি ১০০ টাকা এবং ১৫% ভ্যাট সহ মোট ১১৫ টাকা। ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন পেয়ে মোট কত টাকা হয়েছে তা বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন এর ওয়েবসাইট থেকে বের করা যায়। 

কিভাবে জাতীয় পরিচয়পত্রের ফি হিসাব করবেন

আপনার ভোটার আইডি কার্ড অর্থাৎ জাতীয় পরিচয় পত্র এর বিভিন্ন তথ্য সংশোধনের জন্য মোট কত টাকা ফ্রি প্রদান করতে হবে এটি হিসাব করার সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য মাধ্যম হল বাংলাদেশ এপ্লিকেশন সিস্টেম অর্থাৎ নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইট। 

NID Wing

এই ওয়েবসাইট আপনার ভোটার আইডি কার্ড আগে কখনো সংশোধন হয়েছে কিনা তা অনুসারে প্রযোজ্য ফি হিসেব করে দেখিয়ে দেয়। 

আরও পড়ুন  ভোটার এলাকা পরিবর্তন করার নিয়ম ২০২৪ - NID Form 13

নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইট থেকে ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন ফি বের করার জন্য প্রথমেই ওয়েবসাইটটি ভিজিট করুন। ওয়েবসাইটে আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র নাম্বার এবং সংশোধনের ধরন ও তথ্য সিলেক্ট করে হিসাব বাটনে ক্লিক করলেই প্রযোজ্য ফি এর হিসাব পেয়ে যাবেন। 

ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন ফি জমা দেওয়ার নিয়ম

আপনি চাইলে মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস রকেট অথবা বিকাশ থেকেও সহজেই জাতীয় পরিচয়পত্র অর্থাৎ ভোটার আইডি কার্ড তথ্য সংশোধনী পরিশোধ করতে পারেন। এভাবে ফ্রী পরিশোধ করার জন্য প্রথমে আপনার বিকাশ একাউন্টে লগইন করুন। 

বিকাশ অ্যাকাউন্ট
বিকাশ অ্যাকাউন্ট

অ্যাকাউন্ট ড্যাশবোর্ড থেকে পে বিল > সরকারি ফি > NID Services  অপশনে যান। এখান থেকে আবেদনের ধরন ও তথ্য সিলেক্ট করে এবং জাতীয় পরিচয় পত্র নাম্বার দিয়ে কি পরিশোধ করতে পারেন। 

Bkash
Source – bkash.com

শেষ কথা 

আশা করি আজকের পোস্টটি আপনার কাছে ভালো লেগেছে। আজকের পোস্টে আমরা আলোচনা করেছি, ভোটার আইডি কার্ড এর বিভিন্ন তথ্য সংশোধন করতে কতো টাকা প্রয়োজন হয়। আমারা ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন করতে কতো টাকা লাগে সে বিষয়ে বিস্তারিত আলোচণা করেছি যা আপনাকে সহজেই নতুন ভোটার আবেদন করতে সাহায্য করবে। 

আপনি যদি ভোটার আইডি কার্ড সম্পর্কে আরো নতুন পোস্ট করতে চান তাহলে ওয়েবসাইটটি বুক মার্ক করে রাখতে পারেন। এবং আপনি  আপনার মূল্যবান মতামত বা কোন প্রশ্ন থাকলে তা কমেন্টে শেয়ার করতে ভুলবেন না।  

FAQs

ঘরে বসেই কি ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন করা সম্ভব ?

জি হ্যা। আপনি চাইলে ঘরে বসেই অনলাইন এর মাধ্যমে ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন করতে পারেন ।  

ভোটার আইডি কার্ড নাম সংশোধন করতে কত টাকা লাগে ?

সাধারন ভাবে ভোটার আইডি কার্ড সংশোধন করতে ভ্যাট সহ মোট ২৩০ টাকা লাগে। এখানে ফি ২০০ টাকা এবং ১৫% ভ্যাত ৩০ টাকা মোট ২৩০ টাকা। তবে এক্ষেত্রে জাতীয় পরিচয় পত্র এর অন্যান্য তথ্য সংশোধন করতে ভ্যাট সহ ১১৫ টাকা ফি প্রদান করতে হই।

সংশোধিত স্মার্ট কার্ড পাওয়া যায়?

জি না।  ভোটার আইডি কার্ড সংশোধনের পর অনলাইনে সংশোধিত তথ্য সক্রিয়ভাবে পরিবর্তন হয়ে যায়। তবে সংশোধনের পর নতুন সংশোধিত ভোটার আইডি কার্ড পাওয়া যায় না। নতুন আইডি কার্ডের প্রয়োজন হলে জাতীয় পরিচয় পত্র রি-ইস্যু আবেদন করে নতুন আইডি কার্ড তুলে নিতে হয়। 

আইডি কার্ড সংশোধন ফি কিভাবে জমা দিব?

ফি পরিশোধ করার জন্য প্রথমে আপনার বিকাশ একাউন্টে লগইন করুন। অ্যাকাউন্ট ড্যাশবোর্ড থেকে পে বিল > সরকারি ফি > NID Services  অপশনে যান। এখান থেকে আবেদনের ধরন ও তথ্য সিলেক্ট করে এবং জাতীয় পরিচয় পত্র নাম্বার দিয়ে ফি পরিশোধ করতে পারেন। 

Similar Posts

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।